মেসির দশ নম্বর: সাহস নেই অ্যাগুয়েরোর

দীর্ঘ ২১ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে প্যারিস সেন্ট জার্মেই, পিএসজিতে চলে গেছেন লিওনেল মেসি। নতুন ঠিকানায় ৩০ নম্বর জার্সি পেয়েছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। গণমাধ্যমে প্রকশিত খবরে জানা যায়, বন্ধু নেইমার ১০ নম্বর জার্সি ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন মেসিকে। আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুঘর তাতে সম্মতি দেননি।

 

প্রায় দেড় যুগ আগে ৩০ নম্বর জার্সিতেই কাতালান ক্লাবের হয়ে অভিষেক হয়েছিল তার। পর্যায়ক্রমে ১০ নম্বর জার্সি পান মেসি। স্বপ্নের জার্সিতে নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। সর্বশেষ কোপা আমেরিকার টুর্নামেন্ট সেরা খেলোয়াড় প্যারিসে পাড়ি জমালেও বার্সার ১০ নম্বর জার্সি এখনও কারও গায়ে উঠেনি।

 

স্প্যানিশ ফুটবল পাড়ার গুঞ্জন, বার্সার ১০ নম্বর জার্সি পেতে যাচ্ছেন সার্জিও অ্যাগুয়েরো। তবে জেরার্ড পিকে যে তথ্য দিয়েছেন তাতে হতাশ হতেই হয়। স্পেনের বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম সদস্য জানালেন, প্রিয় বন্ধুর রেখে যাওয়া জার্সি পরার সাহস দেখাতে পারছেন না আর্জেন্টাইন তারকা।

সম্প্রতি পিকের সঙ্গে এক টুইচ স্ট্রীমে স্প্যানিশ ইন্টারনেট সেলিব্রেটি ইবাই লানোস বলেন, ‘কেউ ১০ নম্বর জার্সি পরতে চায় না? কারও সাহস নেই? এরপর পিকের জবাব, ‘কাউকে না কাউকে তো ১০ নম্বর জার্সি পরতেই হবে। আমি আগুয়েরোকে বলেছিলাম। সে নিশ্চয়তা দিতে পারেনি।’

মেসি চলে যাওয়ায় অ্যাগুয়েরোর পাশাপাশি ১০ নম্বর জার্সি পরার সম্ভবনা ছিল মেম্ফিস ডিপেই কিংবা মিরালেম পিয়ানিচের। সেই সম্ভাবনাও এখন আর নেই। ২০২১-২২ মৌসুমে লা লিগার প্রথম ম্যাচে গত ১৬ আগস্ট রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে বার্সার ম্যাচে এই দুইজনের কারও গায়েই দেখা যায়নি বহুল আকাঙ্খক্ষিত জার্সিটি।

অ্যাগুয়েরো ১০ নম্বর জার্সি পরবেন না এমন সম্ভাবনা এখনই উড়িয়ে দেওয়ার সুযোগ নেই। ইনজুরির কারণে এখনও বার্সার হয়ে অভিষেক হয়নি তার। সাবেক ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিতে পরতেন ১০ নম্বর জাসি। এই স্ট্রাইকার শেষ পর্যন্ত বার্সায় প্রিয় বন্ধুর রেখে যাওয়া জার্সি পরলে অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না।

তবে আলোচনায় আছেন আরেকজন, তিনি হচ্ছেন রে মানাজ। বার্সায় মেসির জার্সির উত্তরসূরী হিসেবে তরুণ ফুটবলারদের নাম প্রস্তাব করেছেন কিংবদন্তি রোনালদিনহো। বার্সা কোচ রোনাল্ড কোম্যানও সম্প্রতি ইঙ্গিত দিয়েছেন তেমনকিছুর। সেই হিসাবে মানাজই এগিয়ে।

 

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, কে এই মানাজ? ২৪ বছর বয়সী এই ফুটবলারের জন্ম আলবেনিয়ায়। ছয় বছরের পেশাদার ক্যারিয়ারে ইতোমধ্যে তিনি খেলেছেন ছয়টি ক্লাবের জার্সিতে! ২০১৪ সালে ইতালির তৃতীয় সারির ক্লাব ক্রেমোনেসের জার্সিতে অভিষেক হয় তার। পরের বছরই তাকে কিনে নেয় ইন্টার মিলান। আজ্জুরিদের হয়ে তিন বছরে মাত্র চারটি ম্যাচ খেলেছেন মানাজ।

ম্যাচ সংখ্যা কম হওয়ার কারণ, ওই তিনটি বছরে আলবেনিয়ান স্ট্রাইকারকে তিনটি ক্লাবে ধারে খেলিয়েছে ইতালিয়ান লিগ চ্যাম্পিয়নরা। ২০১৮ সালে স্পেনের দ্বিতীয় সারির ক্লাব আলবাসেতের কাছে মানাজকে বিক্রি করে দেয় ইন্টার মিলান। গত বছর তাদের কাছ থেকে আবার কিনে নেয় বার্সা। মানাজকে খেলানো হয় বার্সা বি দলে। এবার মূল দলে অভিষেকের স্বপ্ন দেখছেন তিনি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *