টিকা নিতে খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা চেয়ে পুলিশের কাছে চিঠি

করোনাভাইরাসের টিকা নিতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সার্বিক নিরাপত্তা চেয়ে পুলিশের কাছে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) তার একান্ত সচিব এবিএম আব্দুস সাত্তার দলীয় প্যাডে স্বাক্ষরিত একটি চিঠি ডিএমপি কমিশনার বরাবর পাঠিয়েছেন।

এতে বলা হয়, বিএনপি চেয়ারপারসনের দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেয়ার জন্য  বুধবার (১৮ আগস্ট) নির্ধারিত রয়েছে। রাজধানীর মহাখালীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে এদিন দুপুর দুইটায় তাকে টিকা দেওয়া হবে।

ওই সময় গুলশানের বাসা ফিরোজা থেকে হাসপাতালে আসা যাওয়ার ক্ষেত্রে সার্বিক নিরাপত্তা চাওয়া হয়েছে চিঠিতে। চিঠির একটি অনুলিপি শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রো লিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক বরাবর পাঠানো হয়েছে।

এর আগে ওই হাসাপাতালে ১৯ জুলাই বিকেল ৪টায় খালেদা জিয়া মডার্নার টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেন। ওই দিন একইভাবে তার বাসা থেকে হাসপাতাল পর্যন্ত তাকে সার্বিক নিরাপত্তা দেয় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

খালেদা জিয়া গত ৯ জুলাই ‘সুরক্ষা’ ওয়েবসাইটে টিকার জন্য নিবন্ধন ফরম পূরণ করেন। ৯ দিন পর টিকা নেওয়ার নির্ধারিত তারিখ উল্লেখ করে তাকে এসএমএস দেওয়া হয়।

চলতি বছর ১৪ এপ্রিল খালেদা জিয়ার শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। প্রথমে বাসায় থেকেই চিকিৎসা নেন তিনি। পরে নানা শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে ২৭ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে গত ৯ মে তার করোনা পরীক্ষায় ‘নেগেটিভ’ আসে। তারপরও শারীরিক সমস্যা থাকায় প্রায় দেড় মাস তাকে হাসপাতালে থাকতে হয়।

সেখানে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। শ্বাসকষ্টের কারণে মাঝে কিছুদিন তাকে সিসিইউতেও রাখা হয়।

৫২ দিনের চিকিৎসা শেষে ১৯ জুন রাতে গুলশানের বাসা ফিরোজায় ফেরেন তিনি। এতদিন বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

দুর্নীতির দুই মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বেগম জিয়া গত বছরের ২৫ মার্চ শর্ত সাপেক্ষে মুক্তি পান। এরপর তার মুক্তির মেয়াদ তিন দফা বাড়ানো হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *