কিউইদের সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় ডোবাল টাইগাররা

বাংলাদেশে খেলতে এসে শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হলো সফরকারী নিউজিল্যান্ডের। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ কিউই ব্যাটসম্যানরা। সাকিব-মেহেদীদের ঘূর্ণিতে শুরু থেকেই ম্যাচের নাটাই টিম টাইগার্সের হাতের মুঠোয় ছিল। ধুঁকতে ধুঁকতে শেষ পর্যন্ত কিউইদের ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে।

এদিকে, ব্যাটিং বিপর্যয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড স্পর্শ করেছে কিউইরা। এর আগে ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল টম লাথামরা। এদিন বাংলাদেশের বোলাররা আবারো নিউজিল্যান্ডকে সেই লজ্জায় ডোবাল।

বাংলাদেশের বোলাররা ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজই করে দিলো। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পেতে হলে করতে হবে ৬১ রান।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে পুরোপুরি ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে সফরকারী নিউজিল্যান্ড। দলের খাতায় মাত্র ৯ রান যোগ করতেই ৪ উইকেট হারায় দলটি। শুধু প্রতিপক্ষ পরিবর্তন। চিত্রনাট্য একই। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেও প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম ব্রেকথ্রু এনে দিয়েছিলেন মেহেদী হাসান। আজ বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও একই নৈপুণ্য দেখালেন এই তরুণতুর্কি।

ইনিংসের প্রথম ওভারের মাত্র তিন বলের মাথায় কিউই ব্যাটসম্যান রাচীন রবিন্দ্রকে সহজ ক্যাচে পরিণত করেন মেহেদী হাসান। অভিষেক ম্যাচেই গোল্ডেন ডাকের শিকার হন রাচীন।

ইনিংসে তৃতীয় ওভারের পঞ্চম বলে সাকিব আল হাসানকে কাট করতে গিয়ে বল স্টাম্পে টেনে আনেন উইল ইয়াং। নিজের প্রথম ওভারেই উইকেটের দেখা পেলেন সাকিব। ১১ বলে ৫ রান করে আউট হন ইয়াং। ৩ ওভার শেষে ২ উইকেটে মাত্র ৮ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

এরপর চতুর্থ ওভারে নাসুম আহমেদ বোলিংয়ে এসে তুলে নেন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকে। তুলে মারতে গিয়ে আফিফের হাতে ক্যাচ দেন তিনি। আউট হওয়ার আগে ৪ বলে মাত্র ১ রান করতে পেরেছিলেন। এদিকে, বাংলাদেশের তিন স্পিনারই শুরুতেই উইকেটের দেখা পেলেন। বাংলাদেশের স্পিন ঘূর্ণিতে দাঁড়াতেই পারল না নিউজিল্যান্ডের টপ অর্ডার! চতুর্থ ওভারে গ্র্যান্ডহোমকে আউট করার দুই বল পর আবারও উইকেটের দেখা পেলেন নাসুম। ৬ বলে ২ রান করা ব্লান্ডেল তার আর্ম বলে বোল্ড আউট হন।

পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে ৪ উইকেটে ১৮ রান করে নিউজিল্যান্ড। একে তো মন্থর শুরু, পাশাপাশি স্পিনারদের খেলতে না পারায় দ্রুত উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় সফরকারীরা। টপ অর্ডারে প্রথম চার ব্যাটসম্যান ব্লান্ডেল, রবীন্দ্র, ইয়াং ও গ্র্যান্ডহোমের স্কোর যথাক্রমে ২,০,৫,১।

দলের সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মিছিলে সঙ্গী হলেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক টম ল্যাথামও। ২৫ বলে ১৮ রান করে সাইফুদ্দিনের বলে নাসুমের সহজ ক্যাচে পরিণত হন তিনি। তবে আউট হওয়ার আগে হেনরি নিকোলসের সঙ্গে জুটি বেধে ৩৪ রান যোগ করেন।

সাইফুদ্দিনের সফল ওভারের পর আবারও বল হাতে সাকিব। আবারও সেই চিরচেনা উদযাপন দলের। সাকিবের বলে সাজঘরে ফেরেন কোল ম্যাককঞ্চি। আউট হওয়ার আগে ৩ বল খেললেও কোনো রান করতে পারেননি।

নিউজিল্যান্ডের যা একটু আশা হয়ে ছিলেন হেনরি নিকোলস। শেষ হয় সেটিও। সাকিবের আঘাতের পরের ওভারেই সাইফউদ্দিনকে তুলে মারতে গিয়েছিলেন নিকোলস, লং-অনে ধরা পড়েছেন মুশফিকের হাতে। ১৪ ওভার শেষে ৪৯ রানে ৭ম উইকেট হারিয়েছে নিউজিল্যান্ড।

বাংলাদেশের বোলারদের উইকেট আনন্দের দিনে যেন কিছুটা বঞ্চিত ছিলেন দলের সেরা বোলার মুস্তাফিজুর রহমান। তবে শেষমেশ তার মুখেও হাসি ফুটলো। ১৫ তম ওভারের প্রথম বলেই আউট করেন এজাজ প্যাটেলকে। এজাজের পর ব্রাচওয়েলকেও ফেরান মুস্তাফিজ। ম্যাচ শুরুর আগে প্রতিপক্ষের বিপক্ষে প্রত্যাশিত সাফল্য পেতে হলে পরিকল্পিত ক্রিকেটের কোনো বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে অধরা জয়ই শুধু নয়। একটা সিরিজ জিততে চায় বাংলাদেশ। সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারের প্রতিশোধের জ্বালাও মেটাতে চায় বাংলার বাঘেরা।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ১০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে একটিতেও জয় পায়নি বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডকে ৩-২ ব্যবধানে হারাতে পারলে টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে সাত নম্বরে উঠবে বাংলাদেশ। তার থেকেও বড় কথা, নিউজিল্যান্ডকে যদি বাংলাদেশ দল হোয়াইটওয়াশ করতে পারে, তাহলে র‌্যাংকিংয়ের ইতিহাসে প্রথম বারের মতো টাইগাররা উঠে আসবে ৫ নম্বরে। এমন দুর্লভ সুযোগ হয়তো হেলায় হারাবেন না মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *